ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিজয় ও টুনটুনি আদৃতা
Psychology

ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিজয় ও টুনটুনি আদৃতা

May 4, 2017   |    9455


আমাদের সবার দিকে মধ্যাঙ্গুলি দেখিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনে বিজয়ী হলেন। ১৬ মাসের ্যাম্পেইনের পুরোটা জুড়েই রেসিজম, ্যারাসমেন্ট জনিত নানা বিতর্কে ট্রাম্প ছিলেন জর্জরিত। তারপরেও ট্রাম্প কীভাবে জিতে গেলেন?

 

আসুন, আপনাকে দেখিয়ে দেই!

 

বলুন তো, ট্রাম্পের নির্বাচনী স্লোগান কি?

 

সবাই লাফিয়ে বলবেন, Make America Great Again!

 

এবার চিন্তা করে বলুন তো, হিলারীর নির্বাচনী স্লোগান কি?

 

আহ! মনে পড়ছে? কষ্ট হচ্ছে? কনফিউজড? তাই না?

 

মার্কেটিং বিচার করলে ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার ইতিহাসের বেস্ট সেলিং প্রোডাক্ট। নিজেকে কীভাবে বিক্রি করতে হয় তা এই ধনকুবের ভালো ভাবেই বুঝেছিলেন। মানুষ তার কথাই মনে রাখে যাকে নিয়ে অনেক ঝগড়া হয়, অনেক ক্রিসিসিজম হয়।

 

ডোনাল্ড ট্রাম্প একের পর এক অসংলগ্ন বক্তৃতা দিলেন। আর, হাজারো হিলারী সার্পোটার ট্রোলযুক্ত কমেন্ট দিয়ে সেটা শেয়ার করলেন। আসলে, এতে ট্রাম্পেরই পরিচিতি বেড়েছে। এক পর্যায়ে দেখা গেলো, হিলারীর নিজের কোন ্যাম্পেইন নেই। তার প্রচারণা বলতে গেলে শুধু ট্রাম্পের বক্তৃতার সমালোচনা করা।

 

আজকে আমেরিকাতে এই ঘটনা হলো। আমরা অনেক ট্রোল করলাম। কিন্তু, কালকে বাংলাদেশেও একই ঘটনা ঘটতে পারে। অবিশ্বাস হচ্ছে? আপনার মনে হচ্ছে বাঙালীরা এতো বোকা না?

 

হাহা!

 

টুনটুনি আদৃতার কথা মনে আছে। একটা অচেনা মেয়ে মেকাপ দিয়ে ছেচঁড়া নেকামি করলো। আপনারা তাকে পঁচাতে তার ভিডিও শেয়ার দিয়ে ট্রোল করলেন। এখন সবাই তাকে চেনে। তার এই বিশাল পাবলিসিটি করেছেন আপনারাই। হিলারী সমর্থকদের মত অনেকটা না জেনেই। কালকে টুনটুনি আদৃতা পাড়ার ওয়ার্ড কমিশনার নির্বাচনে দাড়ালে আপনার হাসবেন। পচাবেন। কিন্তু, দেখা যাবে সবাই শুধু তাকেই চেনে। দিন শেষে, তার বিজয় আপনাকেই ট্রোল করবে।

 

লিস্টে আরো আছে। হিরো আলম, আলি জি স্টারের মতো মেধাহীন মানুষগুলোকে আপনারই শেয়ার দিয়ে দিয়ে ফেমাস বানিয়েছেন। আমেরিকানদের ট্রোল করা বন্ধ করুন। আপনি নিজেও এর থেকে ভিন্ন কিছু না!

 

একটু ফেইসবুকীয় আচরণে পরিবর্তন আনেন। হিরো আলমের পোস্ট শেয়ার করে তাকে পচাতে চাচ্ছেন? খবর নিয়ে দেখেন আপনার সেই শেয়ারই হিরো আলমের মূল শক্তি।

 

পাবলিসিটি প্রেমিক এইসকল ফেসবুক সেলিব্রিটির গাছের গোড়ায় সার (পড়ুন শেয়ার) দিয়ে নোংরামি চাষ করা বন্ধ করুন। যদি তাদেরকে ট্রোল করতেই চান তাহলে যাস্ট পোস্টটা কোন লাইক/কমেন্ট না দিয়ে এড়িয়ে যান। যে সস্তা এটেনশন চায় তাকে তা দেয়া না হলে, সেটাই হয় সবচেয়ে বড় অপমান।

 

আর যদি এখনও ফালতু পোস্ট শেয়ার করে ভাইরাল করেন তাহলে ভবিষ্যতে টুনটুন আদৃতাও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো হাসতে হাসতে আপনাকে বলবে “The Joke is on you”.

 

There is a TRUMP in every human. Only an educated person can TRUMP that part of his soul.



Contact

Hi there! Please leave a message and I will try my best to reply.

© 2024 Shamir Montazid. All rights reserved.
Made with love Battery Low Interactive.